Â

বন্ধন ব্যাঙ্কে চাকরি করতে চাইছেন? কিভাবে আবেদন করবেন বিস্তারিত জানুন প্রতিবেদনে।

ডোনেশন ছাড়াই বন্ধন ব্যাঙ্কে নিয়োগ। আবেদন পদ্ধতি জানুন। বন্ধন ব্যাঙ্কে চাকরির জন্য কিভাবে আবেদন করবেন? কিভাবে নিয়োগ করা হয়, আবেদনের জন্য কি যোগ্যতা থাকতে হবে, কোন কোন পদে নিয়োগ করা হয়, বেতনই বা কত বিস্তারিত আলোচনা করা হলো আজকের প্রতিবেদনে।

সাধারণত ব্যাঙ্কে বিভিন্ন পদে চাকরির জন্য কমপক্ষে স্নাতক হতে হয়। কিন্তু বন্ধন ব্যাঙ্ক স্নাতক ডিগ্রি ছাড়াও মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক যোগ্যতায় প্রতিবছর প্রচুর কর্মী নিয়োগ করে থাকে। এখানে চাকরির জন্য কোনো প্রকার ডোনেশন দিতে হয় না। বরং বায়োডেটা জমা, অভিজ্ঞতা ও ইন্টারভিউ এর মাধ্যমে কিছু সহজ পদ্ধতিতে কর্মী নিয়োগ করে থাকে বন্ধন ব্যাঙ্ক।

এমনকি ফি বছর কর্মী নিয়োগ করলেও আলাদা করে কোনো প্রকার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয় না। চাকরিপ্রার্থীদের কোনো লিখিত পরীক্ষাও নেওয়া হয় না। উল্টে এই ব্যাঙ্কে চাকরি করতে ইচ্ছুকদের নিজে থেকেই ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে CV জমা করে চাকরি পেতে হয়। আপনার কাছে যদি ব্যাচেলর ডিগ্রি নাও থাকে এবং আপনি ব্যাঙ্কে চাকরি করতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তবে এটি আপনার কাছে একটি ভালো সুযোগ।

আরও পড়ুনঃ বাড়িতে বসেই ডিজিটাল রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করুন খুব সহজেই। জানুন পদ্ধতি।

আবেদন যোগ্যতা:-

  • রাজ্যের সমস্ত জেলা থেকে পুরুষ, মহিলা সকলেই আবেদনের যোগ্য।
  • কিস্তি মাস্টার পদের জন্য ন্যূনতম মাধ্যমিক বা সমতুল্য পরীক্ষায় পাস করে থাকতে হবে।
  • পিওন ও ক্লার্ক পোস্টের জন্য কমপক্ষে উচ্চ মাধ্যমিক পাস হতে হবে।
  • Relationship Manager, Accountant ও Office Executive পদের জন্য যেকোনো শাখায় গ্র্যাজুয়েট হতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স ১৮ থেকে ৩৩ বছরের মধ্যে হতে হবে।
  • এছাড়াও টাকা কালেকশনের জন্য আগে ক্যাশিয়ার হিসেবে কাজ করে থাকলে কিম্বা বাইক/সাইকেল চালিয়ে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা থাকলে অগ্রাধিকার পাবেন।
bandhan-bank

আবেদন ও নিয়োগ প্রক্রিয়া:-

বন্ধন ব্যাঙ্কে চাকরি করতে ইচ্ছুক প্রার্থীরা আবেদনের জন্য bandhanbank.com এই ওয়েবসাইটে গিয়ে অথবা সবচেয়ে ভালো হয় যদি আপনার কাছাকাছি বন্ধন ব্যাঙ্কের শাখায় গিয়ে যোগাযোগ করে Bio-Data/CV জমা করেন। পরে শাখার শূন্যপদ অনুযায়ী বায়োডেটাতে দেওয়া Contact Number এ প্রয়োজন মতো আবেদনকারীদের ইন্টারভিউ এর জন্য ডেকে নেওয়া হবে। সাক্ষাৎকার, নথি যাচাইকরণ ও সবশেষে ট্রেইনিং করিয়ে বন্ধন ব্যাঙ্কে বিভিন্ন পোস্টে নিয়োগ করা হবে।

বেতনকাঠামো ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা:-

আরও পড়ুনঃ বাড়িতে বসে ভোটার কার্ডের ভুল সংশোধন করুন খুব সহজেই।

শিক্ষাগত যোগ্যতা, পোস্ট ও অভিজ্ঞতা অনুযায়ী মাস্টার পদে ৯,০০০-১২,০০০ টাকা, ক্লার্ক পদে ১৫,০০০-১৮,০০০ টাকা এবং ম্যানেজার/অ্যাকাউন্ট্যান্ট/অফিসার পোস্টগুলোর জন্যে প্রতিমাসে ২০,০০০-২৫,০০০ টাকা পর্যন্ত বেতন দিয়ে থাকে বন্ধন ব্যাঙ্ক। অভিজ্ঞতা বাড়ার সাথে সাথে প্রোমোশনের পাশাপাশি বেতনও বৃদ্ধি হয় কর্মীদের। প্রাথমিকভাবে এই ব্যাঙ্কে চাকরির ক্ষেত্রে সাধারণত বাড়িয়ে থেকে দূরবর্তী স্থানে নিয়োগ হয়। তাই এখানে চাকরি করলে থাকা-খাওয়া সহ মেডিক্যাল ফ্যাসিলিটিও দিয়ে থাকে বন্ধন ব্যাঙ্ক। এছাড়া কিস্তি/EMI এর মাধ্যমে মোটর বাইক কিনতেও সহায়তা করে থাকে বন্ধন ব্যাঙ্ক।

ব্যাঙ্কে কি কি কাজ করতে হয়?

এই ব্যাঙ্কে সাধারণত দুই ধরনের কাজ করতে হয় কর্মীদের। কিস্তির মাস্টাররা গ্রামীণ/শহুরে এলাকায় ঘুরে ঘুরে মহিলাদের দল থেকে Loan এর টাকা সংগ্রহ করে অফিসে জমা দেন। আর দ্বিতীয়ত ক্লার্ক, অ্যাকাউন্ট্যান্ট, ম্যানেজার ও অফিসারেরা অফিসের বিভিন্ন কাজকর্ম দেখভালের পাশাপাশি টাকার যাবতীয় হিসেব, টাকা লেনদেন, অফিসের বিভিন্ন কাজকর্ম পরিচালনা করেন।

আবেদনের সময়সীমা:-

এই ব্যাঙ্কে আবেদনের নির্দিষ্ট কোনো সময়সীমা উল্লেখ নেই অফিশিয়াল ওয়েবসাইট। প্রায় সারাবছর ধরেই আবেদন ও নিয়োগ প্রক্রিয়া চলতে থাকে।

কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের চাকরির আরও খুটিনাটি আপডেট পেতে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে জয়েন করুন।

টেলিগ্রাম চ্যানেল:- Link

Like Facebook Page