Â

বালেশ্বর ট্রেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত দের জন্য বিরাট ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার। কারা চাকরি পাবেন?

ওড়িশায় ট্রেন দুর্ঘটনাগ্রস্তদের জন্য বড়ো ঘোষণা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বালাসোর এ ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার প্রকোপে যারা পড়েছিলেন, তাদের অনেকেই বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। কেউ স্বজন কে হারিয়েছেন, কেউ গুরুতর আহত হয়েছেন, কেউবা আবার অক্ষত অবস্থায় বাড়িতে ফিরলেও সেই দুর্ঘটনার স্মৃতি আঁকড়ে ট্রমায় ভুগছেন। ইতিমধ্যেই করমন্ডল ট্রেন দুর্ঘটনার ৭ দিন কেটে গিয়েছে। এরই মধ্যে ট্রেন দুর্ঘটনা গ্রস্তদের জন্য বিরাট ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন মেদিনীপুর গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তিরত ট্রেন দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের দেখতে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। সেখানে এসে দুর্ঘটনায় আক্রান্ত ও স্বজনহারা পরিবার গুলির জন্য একগুচ্ছ সুযোগ সুবিধা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, যারা ট্রেন দুর্ঘটনায় চলে গিয়েছে তারা তো আর ফিরে আসবে না। তবে স্বজনহারা পরিবার গুলি যাতে ভবিষ্যতে রোজগার করে চলতে পারে তার বন্দোবস্ত করবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এদিন ট্রেন এক্সিডেন্ট এ আক্রান্তদের জন্য কি কি ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী?

এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি প্রশ্নের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ট্রেন দুর্ঘটনায় যারা স্বজনহারা হয়েছেন, সেই সকল পরিবারগুলোকে এককালীন ৫ লাখ টাকা ও পরিবারের একজনকে হোম গার্ডের চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন মুখ্যমন্ত্রী। ট্রেন দুর্ঘটনায় যারা মোটামুটি আহত হয়েছেন তাদের প্রত্যেক কে পঞ্চাশ হাজার টাকা, এক্সিডেন্টে যারা গুরুতর জখম হয়েছেন তাদের ১ লাখ টাকা এবং যারা তুলনামূলক কম আহত হয়েছেন তাদের এককালীন পঁচিশ হাজার টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ- মা এর আগমন ও গমন কীসে? জেনে নিন ২০২৩ সালের দুর্গাপূজার সময়সূচি।

এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রী এদিন আরও ঘোষণা করেন, ট্রেন দুর্ঘটনায় যাদের হাত বা পা বাদ গিয়েছে তাদেরও পরিবার প্রতি একটি করে স্পেশাল হোম গার্ডের চাকরি দেওয়া হবে রাজ্য সরকারের তরফে। তাদের পরিবার চাইলে একশো দিনের কাজেও যোগ দিতে পারে সংশ্লিষ্ট পরিবারের সদস্য ও সদস্যারা। ওড়িশার এই ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা সম্প্রতিকালের সবচেয়ে বড়ো ট্রেন দুর্ঘটনা বলে স্মরণীয় হয়ে থাকবে জনজাতির কাছে। দেশ-বিদেশ থেকে প্রচুর মানুষের শোকবার্তা এসেছে। প্রধানমন্ত্রী সরেজমিনে ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে দুর্ঘটনাস্থলে যান।

mamata-banerji-poem

দুর্ঘটনার চুলচেরা বিশ্লেষণের জন্য কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা CBI দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বিষয়টিকে দুর্ভাগ্যজনক বলে ট্যুইট করেছেন। দুর্ঘটনায় সমব্যথী মুখ্যমন্ত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি কবিতাও পোস্ট করেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও শোকবার্তা জ্ঞাপন করেছেন। প্রবাসী ভারতীয়রা দেশবাসীর জন্য কেবল প্রার্থনা করছেন, এমন দুর্ঘটনা যাতে ভবিষ্যতে আর না ঘটে!

আরও পড়ুনঃ- RBI বাতিল করলো ৮ টি ব্যাঙ্কের লাইসেন্স। আপনার ব্যাঙ্ক নেই তো?!

দেশ-বিদেশের সাম্প্রতিক ঘটনাস্রোত সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ, নতুন নতুন ও বিস্তারিত আপডেট পেতে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে জয়েন করুন।

টেলিগ্রাম চ্যানেল:- Link

হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ:- Link

Like Facebook Page