Â

রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার যৌথভাবে বেকার যুবক যুবতীদের প্রতিমাসে ২,৫০০ টাকা করে দেবে। চালু হচ্ছে নতুন প্রকল্প।

যেসকল যুবক-যুবতী পড়াশোনা করেও চাকরি পাননি। যারা বেকার রয়েছেন, তাদের জন্য বড়ো পদক্ষেপ গ্রহণ করলো সরকার। রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারের যৌথ সহযোগিতায় দেশজুড়ে বেকার যুবক যুবতীরা প্রত্যেক মাসে ২,৫০০ টাকা করে ভাতা পেতে চলেছেন। এই মাসিক ভাতা পাওয়ার জন্য প্রার্থীর কি কি যোগ্যতা থাকতে হবে বিস্তারিত নিচে আলোচনা করা হলো।

বর্তমানে চাকরির বাজারে উচ্চ শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থান নিয়ে রাজ্য ও সারা দেশের চিত্রটি বেশ ভয়াবহ। বিগত কয়েকবছর ধরেই চাকরিপ্রার্থীদের অভিযোগ, সরকারি ক্ষেত্রগুলিতে যথেষ্ট পরিমাণে কর্মী নিয়োগ করা হচ্ছে না। শীঘ্রই শূন্যপদ পূরণের দাবিতে লাগাতার আন্দোলন করেও খুব একটা লাভ হচ্ছে না। যত না সরকার পদ পূরণ করা হয়েছে তার থেকে বেশি কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছে বিগত কয়েক বছরে লকডাউনের পরে।

উল্লেখ্য, পড়াশোনা শেষ করে যেসকল যুবক যুবতী এখনো চাকরি পাননি অর্থাৎ লেখাপড়া করার পরেও যারা বেকার রয়েছেন, তাদের মধ্যে এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ ব্যাঙ্কে নাম নথিভুক্ত রয়েছে এমন প্রার্থীরা যাদের লিস্টে নাম উঠেছে তাদের প্রতিমাসে ১,৫০০ টাকা করে মাসিক ভাতা দিয়ে আসছে রাজ্য সরকার। এবার বেকার যুবক যুবতীদের বেকার ভাতা দেবে কেন্দ্র সরকারও এমনটাই আপডেট বিভিন্ন মাধ্যম সূত্রে।

বেকার যুবক যুবতীদের মাসিক অর্থ প্রদানের জন্য একটি নতুন প্রকল্প চালু করতে চলেছে কেন্দ্র সরকার। এই প্রকল্পের অধীনে ৪০ শতাংশ অর্থ প্রদান করবে কেন্দ্র এবং বাকি ৬০ শতাংশ টাকা দেবে রাজ্য সরকার গুলি। অর্থাৎ কেন্দ্র সরকার ১,০০০ টাকা এবং রাজ্য সরকার ১,৫০০ টাকা দেবে। এরফলে প্রতিমাসে মোট ২,৫০০ টাকা পেতে চলেছেন বেকার যুবক-যুবতীরা।

যেহেতু বেকার যুবক যুবতীদের নিয়ে রাজ্য সরকারের যুবশ্রী প্রকল্প নামক একটি সক্রিয় স্কিম রয়েইছে। তাই রাজ্য সরকার এখনই কেন্দ্রের এই প্রকল্পকে রাজ্যে রূপায়িত করেনি। আপাতত কেন্দ্র সরকারের এই প্রকল্প চালু হচ্ছে ওড়িশা, উত্তরাখণ্ড, অসম, ঝাড়খণ্ড ও ছত্তিসগড়ে। পশ্চিমবঙ্গে সরকার কেন্দ্রের প্রকল্প কে অর্ন্তভুক্তি করলে রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীরাও অনেকটাই উপকৃত হবেন।

প্রয়োজনীয় যোগ্যতা:-

আরও পড়ুনঃ- আসন্ন শিক্ষাবর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি নিয়ে সতর্কবার্তা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের। একগুচ্ছ ভুয়ো বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ UGC এর।

এই প্রকল্পে আবেদনের জন্য আবেদনকারীর নিম্নলিখিত যোগ্যতা গুলি থাকতে হবে।

১) আবেদনকারী কে অবশ্যই ভারতীয় হতে হবে।
২) আবেদনকারীর বয়স ১৮-৩৫ বছরের মধ্যে হতে হবে।
৩) এি প্রকল্পে আবেদনের জন্য প্রার্থীর পরিবারের বার্ষিক আয় আড়াই লাখ টাকার কম হতে হবে।
৪) আবেদনকারী কে কমপক্ষে 10+2 উত্তীর্ণ হতে হবে।
৫) সরকারি বা বেসরকারি ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত রা আবেদনের যোগ্য নন।
৬) আবেদনকারী কে কমপক্ষে দুই বছর পূর্বে Employment Exchange Office এ নাম নথিভুক্ত করে থাকতে হবে।
৭) আবেদনকারী প্রার্থী কে স্ব কর্মসংস্থান নির্দেশিকা কেন্দ্রে বেকারের তালিকায় নাম রেজিষ্ট্রেশন করে থাকতে হবে।

উপরিউক্ত শর্তগুলো পূরণ করলে এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই প্রকল্পে সায় দিলে খুব শীঘ্রই বাংলার বেকার যুবক-যুবতীরা এই প্রকল্পের অধীনে প্রত্যেক মাসে ২,৫০০ টাকা করে পেতে চলেছেন।

ধন্যবাদ। তথ্যটি ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। এমন আরও গুরুত্বপূর্ণ খবরের প্রতিনিয়ত আপডেট পেতে আমাদের নিচে ফলো করুন।

গুগল নিউজ:- Link

হোয়াটসঅ্যাপ:- Link

টেলিগ্রাম:- Link

ফেসবুক:- Link

Like Facebook Page