Â

পোস্ট অফিস এই স্কিমে সর্বোচ্চ হারে সুদ দিচ্ছে। বিনিয়োগ করলে সারাজীবন টাকা পাবেন।

পোস্ট অফিসের এই স্কিমে টাকা রাখলে সর্বোচ্চ হারে সুদ পাবেন গ্রাহকেরা। এই প্রকল্পে টাকা জমা রাখলে কোনও ঝুঁকি তো নেইই। বরং মূলধন বিনিয়োগ করলে আপনি প্রতি মাসে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন। নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা অল্প সময়ের জন্য ঝুঁকিহীনভাবে বিনিয়োগ করে ভালো পরিমাণ সুদ পাবেন ভারত সরকারের নিজস্ব অধীনস্থ সংস্থা পোস্ট অফিসে।

বর্তমানে অনেক ব্যক্তিই তাদের আয়ের মূলধন বিভিন্ন সরকারি ব্যাঙ্কে জমা রাখেন। তবে তারা যদি চান তাদের আমানত কোনও নিরাপদ জায়গায় রাখবেন, পাশাপাশি জমাকৃত রাশির ওপরে সবচেয়ে বেশি সুদ সহ ইনকাম করবেন, তবে পোস্ট অফিস সবচেয়ে বেশি নির্ভরযোগ্য সরকারি সংস্থা। পোস্ট অফিসের মান্থলি ইনকাম স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন।

Post Office Monthly Income Scheme বা MIS এ বিনিয়োগ করলে সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী, আপনি একক পরিচালিত অ্যাকাউন্টে সর্বোচ্চ নয় লাখ টাকা এবং জয়েন্ট একাউন্টে সর্বোচ্চ পনেরো লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ বা জমা করতে পারেন। পোস্ট অফিসের এই স্কিমে মাত্র পাঁচ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে হবে আপনাকে।

ধরুন আপনি যদি নয় লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন, তবে আপনি সেই টাকার ওপরে ৭.৪ শতাংশ হারে সুদ পেয়ে যাবেন। হিসেব করলে প্রতি মাসে পাঁচ হাজার পাঁচশত টাকার মতো সুদ পেয়ে যাবেন। এই টাকা আপনি প্রতি মাসেই তুলে নিতে পারবেন। এবং পাঁচ বছর ধরে এই টাকা প্রত্যেক মাসে পেতে থাকবেন আপনি।

পোস্ট অফিসের এই স্কিমে আপনার টাকা কেবল নিরাপদই থাকবেনা। পাঁচ বছর পরে আপনি আপনার মূলধন ফেরৎ পাবেন। পাশাপাশি এই পাঁচ বছরে আপনার রাশি জমা রাখার জন্য ইনকামের একটি বিকল্প পথ তৈরি হয়ে যাবে।

বর্তমানে পোস্ট অফিসের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রকল্প গুলির মধ্যে অন্যতম এই পোস্ট অফিস মান্থলি ইনকাম স্কিম। এই প্রকল্পে বিনিয়োগের জন্য আপনাকে নিকটতম পোস্ট অফিস ব্রাঞ্চে যোগাযোগ করতে হবে। এই প্রকল্পের সুবিধা হলো পোস্ট অফিসের যেকোনো ব্রাঞ্চেই আপনি এই স্কিমে নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন। আপনার অ্যাকাউন্ট এক ব্রাঞ্চ থেকে অন্য ব্রাঞ্চে ট্রান্সফার করতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ- রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার যৌথভাবে বেকার যুবক যুবতীদের প্রতিমাসে ২,৫০০ টাকা করে দেবে। চালু হচ্ছে নতুন প্রকল্প।

এছাড়াও আপনি বিনিয়োগের মেয়াদ শেষে জমানো টাকা আপনার সেভিংস অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করতে পারবেন। এমনকি পলিসির মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে পুনরায় বিনিয়োগ করতে পারবেন। প্রবীণ নাগরিকদের জন্য এটি সবচেয়ে লাভবান একটি স্কিম। এই প্রকল্পে মূলধন নিরাপদে জমা রেখে আপনি প্রত্যেক মাসে একটা ভালো পরিমাণ টাকা সুদ পেয়ে যাবেন যেটি প্রত্যেক মাসেই তুলে নিতে পারবেন।

এমন আরও গুরুত্বপূর্ণ খবরের প্রতিনিয়ত খুটিনাটি আপডেট পেতে আমাদের নিচের লিঙ্কের মাধ্যমে অনুসরণ করতে পারেন। ধন্যবাদ।

WhatsApp Channel:- Link

Like Facebook Page