Â

২০২৩ TET নিয়ে নতুন ঘোষণা। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বাড়ছে জটিলতা।

২০২৩ সালের টেট পরীক্ষা নিয়ে নতুন ঘোষণা করলেন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল। যদিও নতুন টেট পরীক্ষা নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো দিনক্ষণ প্রকাশ করা হয়নি পর্ষদের তরফে। তবে পরীক্ষা হলে তা বছরের দ্বিতীয়ার্ধে অর্থাৎ পুজোর আগে হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সেই মতামত খোলসা করলেন পর্ষদ সভাপতি।

এদিন সংবাদমাধ্যমে পর্ষদ সভাপতি আরও জানান, পর্ষদ চাইছে বছরে দুই সেশনে টেট পরীক্ষা পর্ব সম্পন্ন করতে। তবে এই বিষয়টি এখনো আলোচনা পর্যায়ে আছে। এই প্রস্তাব বাস্তবায়নের জন্য পর্ষদ প্রথমে হক কমিটি মারফত তা শিক্ষা দপ্তরের কাছে পাঠাবে অনুমোদনের জন্য। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ TET পরীক্ষা গ্রহণ করলেও পরীক্ষা পরিচালনার প্রশাসনিক দায়িত্বে থাকে রাজ্য সরকার। তাই শিক্ষা দপ্তর ও রাজ্য সরকারের সবুজ সংকেত পেলেই এই সিদ্ধান্তে সিলমোহর দেবে পর্ষদ।

গেল বৎসর ১১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয় বহু প্রতীক্ষিত টেট পরীক্ষা। সম্প্রতি সেই পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করেছে পর্ষদ। মোট ছয় লক্ষ কুড়ি হাজার চাকরিপ্রার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। যার মধ্যে দেড় লক্ষেরও বেশী প্রার্থী সফল হয়েছেন। তবে টেটে পাশ করলেই যে চাকরি মিলবে এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই! কারণ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ এর জন্য আলাদাভাবে আবেদন করতে হবে। ইন্টারভিউ এর পর মেরিট লিস্ট (প্যানেল) বের করা হবে। চূড়ান্ত পর্বে শূন্যপদ ও মেধা অনুসারে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। এবং নিয়োগ প্রক্রিয়া যে আদালতের বিধি দন্ড মেনেই সম্পন্ন হবে তা আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছেন পর্ষদ সভাপতি।

আরও পড়ুন: লাইনে দাঁড়িয়ে আর অপেক্ষা নয়! UTS অ্যাপের মাধ্যমে লোকাল ট্রেনের টিকিট কাটুন খুব সহজেই।

উল্লেখ্য, আগের টেট পাশ চাকরি প্রার্থীদের সঙ্গে এবারের টেট পাস কারীরা একত্রিত হওয়ায় প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় জটিলতা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তাই TET পাস করেও হকের চাকরি মিলবে কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা থেকেই যাচ্ছে এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Like Facebook Page