Â

আজীবন পাবেন লক্ষ্মীর ভান্ডার। বড়ো ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার।

রাজ্যের মহিলারা সারাজীবন ধরে পাবেন লক্ষ্মীর ভান্ডারে বরাদ্দ টাকার অনুদান। রাজ্যে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প নিয়ে বিরাট ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার। যেসকল মহিলা লক্ষ্মীর ভান্ডারে নাম নথিভুক্ত করেছেন এবং ভাতা পাচ্ছেন তারা আজীবন ৫০০, ১০০০ টাকা করে পাবেন। পরবর্তীকালে অনুদানের পরিমাণ বৃদ্ধি পেলে সেই পরিমাণ টাকা আজীবন পাবেন বলে এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে নিশ্চিত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণায় খুশির জোয়ারে ভাসছেন বাংলার মা-বোনেরা। চলুন জেনে নেওয়া যাক কি আপডেট ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

বাংলার মহিলাদের ন্যূনতম আয়ের ব্যবস্থা স্বরূপ লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের সূচনা করেছেন রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই প্রকল্পের আওতায় পশ্চিমবঙ্গের যোগ্য মহিলারা প্রত্যেক মাসে ক্যাটেগরি অনুযায়ী ৫০০, ১০০০ টাকা করে পেয়ে চলেছেন। ভবিষ্যতে লক্ষ্মী ভাতার অনুদান বাড়ানোর ব্যাপার ভাবনা-চিন্তা করছে রাজ্য সরকার। তবে একটি গুরুতর অভিযোগ বারংবার উঠে আসছে রাজ্যের মহিলাদের তরফে। লক্ষ্মীর ভান্ডারে নাম নথিভুক্তকারী রাজ্যের আংশিক মহিলাদের অভিযোগ, সঠিক পদ্ধতি আবেদন করেও এবং ঠিক ডকুমেন্টস জমা করা সত্ত্বেও পাওয়া যাচ্ছে না লক্ষ্মীর ভান্ডারের অনুদান।

আরও পড়ুনঃ- সেপ্টেম্বরে SSC MTS পরীক্ষা সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট। বছরে দু’বার হবে পরীক্ষা।

এমনকি যারা আগে টাটা পেতেন, কোনো সমস্যা না থাকলেও হঠাৎ করেই ব্যাঙ্কে টাকা ঢোকা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে নবান্নের তরফে জানানো হয়েছে, যাদের সমস্ত তথ্য সঠিক থাকা সত্ত্বেও আগের মাসগুলির টাকা পাননি তাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে তারা জুন মাসে আগের যে কয়েক মাসের টাকা বাকি আছে সমস্তটাই এই মাসে পেয়ে যাবেন। নবান্নের আধিকারিক সূত্রে খবর, এমনটা আগেও হয়েছে। এত বিশাল সংখ্যক লক্ষ্মীর ভান্ডারে সুবিধাভোগীদের কন্ট্রোল করতে কিছুটা খামতি থেকেই যাচ্ছে। তবে যারা সঠিকভাবে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন অথচ এখনো টাকা পাননি, তড়িঘড়ি তাদের বকেয়া টাকা মিটিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে।

পাশাপাশি এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যারা লক্ষ্মীর ভান্ডারে এখন টাকা পাচ্ছেন তারা সারাজীবন এই টাকা পেতে থাকবেন। নিয়মানুযায়ী ১৮-৫৯ বছর বয়স পর্যন্ত রাজ্যের বেরোজগার বা ক্ষুদ্র আয় সম্পন্ন মহিলারা এই প্রকল্পের সুবিধা পেয়ে চলেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, ৫৯ বছরের পর বাংলার মহিলারা ৬০ বছরে পদার্পণ করলেই উক্ত মহিলাদের নাম স্বয়ংক্রিয়ভাবে বয়স্ক ভাতা প্রকল্পের অধীনে নথিভূক্ত করা হবে। অর্থাৎ ১৮-৫৯ বছর বয়স পর্যন্ত লক্ষ্মীর ভান্ডারে টাকা পাবেন। মেয়াদ শেষ হতে বৃদ্ধ ভাতার টাকা পাওয়া শুরু করবেন বাংলার মহিলাররা।

আরও পড়ুনঃ- বছরে দু’বার হবে SSC MTS পরীক্ষা। দিনক্ষণ ও নোটিশ ঘোষণা স্টাফ সিলেকশন কমিশনের।

এভাবে লক্ষ্মীর ভান্ডারে সঠিকভাবে একবার নাম নথিভুক্ত করতে পারলেই আজীবন পেনশন স্কীমে সুবিধা পেতে থাকবেন বাংলার মা-মেয়েরা। লক্ষ্মীর ভান্ডার সম্বন্ধে অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল জুড়ুন নীচের লিঙ্ক ক্লিক করে।

Telegram Channel:- Link

WhatsApp Group:- Link

Like Facebook Page