Â

রাজ্যে বাতিল দু’কোটি রেশন কার্ড। আপনার টা নেই তো? কেন বাতিল করা হলো খাদ্য সাথী কার্ড?

রাজ্যজুড়ে বাতিল করা হলো প্রায় ২ কোটির মতো রেশন কার্ড। আপনার রেশন কার্ডটি এর মধ্যে পড়ছে না তো? কেনই বা বাতিল করা হলো এত সংখ্যক খাদ্যসাথী কার্ড? রেশন কার্ড বাতিল করার জন্য নেওয়া হচ্ছে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবস্থার সাহায্য। এত সংখ্যক রেশন কার্ড বাতিল হওয়ার ফলে রাজ্যের কোষাগারে সাশ্রয় হবে প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার মতো।

রেশন ব্যবস্থা ও রেশন সামগ্রী বন্টন নিয়ে বিভিন্ন সময় নানান দুর্নীতির অভিযোগ উঠে আসে আমজনতার তরফে। এবার ফের একবার রেশন ব্যবস্থায় বড়সড় ধাক্কা। পশ্চিমবঙ্গে প্রায় দুই কোটির মতো ভুয়ো রেশন কার্ড বাতিল করার পথে রাজ্য সরকার। বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে, আধার তথ্যের সাথে রেশন কার্ড সংযুক্তিকরণের (লিঙ্ক) সময় এই বিশাল সংখ্যক ফেক বা জাল রেশন কার্ড ধরা পড়ে।

এতদিন সরকারের চোখকে ফাঁকি দিয়ে এই ভুয়ো রেশন কার্ডের মাধ্যমে টন টন রেশন সামগ্রী তুলে নিচ্ছিল দালাল চক্ররা। নবান্ন সূত্রে খবর, এর ফলে রাজ্যের কোষাগার থেকে প্রায় ৩,৬০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত ব্যয় হচ্ছিল। যদিও মাঝেমধ্যেই রেশন ডিলারদের বিরুদ্ধে রেশন সামগ্রী কারচুপি ও দুর্নীতির অভিযোগ সরকারের কানে নিয়মিত পৌঁছাতো। তবে এই ২ কোটি ভুয়ো রেশন কার্ড বাতিল হওয়ায় রাজ্য সরকারের প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় হবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃ- ব্যাঙ্ক অথবা পোস্ট অফিস, কোথায় টাকা জমা রাখলে সবচেয়ে বেশি লাভ! কোথায় বেশি সুদ পাবেন?

উল্লেখ্য, রাজ্যে মোট রেশন উপভোক্তার সংখ্যা প্রায় ৯ কোটি। তার ওপর এতবড় জালিয়াতি ফ্রড কেস! রেশন ব্যবস্থাকে দুর্নীতিমুক্ত করতে ও পশ্চিমবঙ্গ সরকারের খাদ্য সাথী প্রকল্পে স্বচ্ছতা আনতে এবং আরও যদি ভুয়ো খাদ্যসাথী কার্ড থেকে থাকে, সেই ভুয়ো রেশন কার্ড ছাঁকনি তে ছেঁকে ফেলতে আধারের সাথে রেশন লিঙ্ক করার প্রক্রিয়াতে জোড় দিয়েছে রাজ্য সরকার।

এমন আরও গুরুত্বপূর্ণ সব খবরের আপডেট এবং স্কলারশিপ, প্রকল্প ও চাকরি সম্বন্ধে লেটেস্ট নোটিফিকেশন পেতে আমাদের টেলিগ্রাম ও ফেসবুক এ ফলো করুন।

টেলিগ্রাম:- Link

ফেসবুক:- Link

Like Facebook Page