Â

জমানো টাকা ডবল করতে চান? পোস্ট অফিসের এই স্কিম গুলিতে বিনিয়োগ করুন।

পোস্ট অফিসের এই স্কিম গুলিতে কয়েক বছরেই জমাকৃত টাকার পরিমাণ ডবল হবে। মানুষ যে পরিমাণ টাকা রোজগার করেন তার কিছুটা অংশ সঞ্চয় করেন ভবিষ্যতের কথা ভেবে। ভবিষ্যতে বৃদ্ধ বয়সে নিজের জন্য, চিকিৎসা খরচ ও ছেলে মেয়ের পড়াশোনা, বিবাহ সহ একাধিক ক্ষেত্রে অর্থের প্রয়োজনে যাতে সমস্যা মেটানো যায় তার জন্য ব্যাঙ্ক, পোস্ট অফিস সহ একাধিক প্ল্যাটফর্মে বিভিন্ন খাতে টাকা জমা করে থাকেন সাধারণ মানুষ।

তবে ব্যাঙ্ক ও অন্যান্য ফিন্যান্স সংস্থায় টাকা রাখার চাইতে ভারত সরকারের নিজস্ব সংস্থা পোস্ট অফিসেই টাকা রাখা সবচেয়ে লাভজনক ও নিরাপদ। সেভিংস, ফিক্সড ডিপোজিট ও বিভিন্ন স্কিম এ অন্যান্য করপোরেশনের তুলনায় বেশি সুদ দিয়ে থাকে Department of Posts, Govt. of India। আজ আমরা আলোচনা করবো পোস্ট অফিসের এমন কয়েকটি স্কিম সম্পর্কে যাতে অর্থ বিনিয়োগ করলে, শুধু নিরাপদই থাকবেনা, বরং কিছু বছরের মধ্যেই আপনার জমাকৃত রাশির পরিমাণ প্রায় দ্বিগুণের সমান হবে।

পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিম একনজরে:-

Post Office Monthly Income Scheme:-

এটি পোস্ট অফিসের এমন একটি পলিসি যে আপনি খুব অল্প সময়ের জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা জমা রেখে প্রতি মাসে নগদ সুদের টাকা তুলে নিতে পারবেন। পোস্টের MIS এ পাঁচ বছরের জন্য সর্বোচ্চ ৪.৫ লাখ টাকা জমা রেখে পাঁচ বছর ধরে প্রতিমাসে ২,৬৬২ টাকা সুদ উঠিয়ে নিতে পারবেন হাত খরচের জন্য। ৯ লাখ টাকা জমা রাখলে প্রত্যেক মাসে ৫,৩২৪ টাকা সুদ পাবেন এবং মোট ৫ বছরে ৩ লক্ষ ৫৯ হাজার পাঁচশত টাকা সুদ পাবেন।

আরও পড়ুনঃ- ১০ লক্ষ চাকরির ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Senior Citizen Savings Scheme:-

কোনো ব্যক্তির ষাট বছর হলে পোস্ট অফিসের এই প্রকল্পে নাম লেখাতে পারেন। এছাড়াও কোনো ব্যক্তি যদি পঞ্চান্ন বছর বয়সে অবসর নেন, তবে তিনিও এই সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম এ নাম নথিভুক্ত করতে পারেন। এখন এই স্কিমে জমাকৃত রাশির ওপরে ৮ শতাংশ হারে ত্রৈমাসিক সুদ দেওয়া হচ্ছে গ্রাহকদের। এই পলিসির মেয়াদ ৫ বছর। আপনি যদি এই স্কিমে ১০ লাখ টাকা মতো জমা রাখেন তবে তিন মাস পরপর তিনি ২০ হাজার টাকার মতো সুদ পাবেন।

National Savings Certificate:-

ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট -পোস্ট অফিসের এই স্কিম এ বিনিয়োগ করলে প্রতি মাসে ৭.৭ শতাংশ হারে সুদ পাওয়া যায় জমাকৃত রাশির ওপর। এখানে ন্যূনতম হাজর টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন এবং বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো হায়েস্ট লিমিটেশন নেই। এই স্কিমের সময়সীমা পাঁচ বছর। উদাহরণ স্বরূপ আপনি যদি এক লক্ষ টাকা জমা রাখেন তবে মেয়াদ শেষে পঁয়তাল্লিশ হাজার টাকার মতো সুদ পাবেন।

এমন আরও সব গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের বিস্তারিত বিবরণ আপডেট পেতে আমাদের Telegram Broadcast এ অনুসরণ করুন।

Telegram Broadcast:- Link

Like Facebook Page