Â

রেশনে বিনামূল্যে চিনি, ডাল ও ভোজ্য তেল দেওয়া শুরু করলো রাজ্য সরকার।

ভারতের জনসাধারণের জন্য বিশেষত বিপিএল তালিকাভুক্ত পরিবারগুলোর জন্য সরকারিভাবে খাদ্যদ্রব্য বন্টনের একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যবস্থা হলো রেশন। বর্তমানে বিভিন্ন রাজ্যেই কেন্দ্র প্রদত্ত চাল, আটা/গম বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে আমজনতাকে। চিনি ও কেরাসিন তেল ন্যায্য মূল্য দিয়ে কিনে নিতে হচ্ছে উপভোক্তাদের। তবে ভারতভূমির স্বাধীনতা দিবসের পুণ্য লগ্নে আগস্ট মাস থেকেই উক্ত রেশন সামগ্রীর (চাল, আটা ও গমের) সঙ্গে চিনি, ডাল ও ভোজ্য তেল একেবারে বিনামূল্যে সাধারণ মানুষকে বন্টনের সূচনা করলো রাজ্য সরকার।

দেশের স্বাধীনতা দিবসের প্রাক লগ্নে সাধারণ মানুষকে খাদ্য বন্টনের এই বিষয়টি অনুষ্ঠিত হয়েছে রাজস্থানে। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী এই খাদ্যদ্রব্য বন্টনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে রাজস্থানের পরিবারগুলোর সদস্যদের হাতে এই রেশন সামগ্রী তুলে দিলেন। রেশন সামগ্রীর মধ্যে চাল, আটা ছাড়াও ভোজ্য সয়াবিন তেল, চিনি, ছোলার ডাল, লঙ্কা ও ধনে গুঁড়োর প্যাকেট অন্তর্ভুক্ত ছিল। এই স্কীমের নাম Annapurna Food Scheme নাম দিয়েছে রাজস্থান সরকার। সাধারণ মানুষদের রেশন বন্টনে এই জিনিসগুলো সরকারের তরফে প্রদান করা দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার মধ্যে পড়ে বলে তিনি মনে করেন।

উল্লেখ্য, ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের নেতা তথা যোধপুর বিধানসভার বিধায়ক তথা রাজস্থানের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহেলট এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে বলেন, কেন্দ্র সরকারের উচিত, প্রতি ছয়মাস অন্তর রেশন বন্টনের সময়সীমা না বাড়িয়ে এর একটা সুস্থিত ও পাকা বন্দোবস্ত করা। পাশাপাশি কেন্দ্র সরকারের প্রতি রেশন ডিলারদের খাদ্যদ্রব্যের বন্টনের যে কমিশন তা বাড়ানোর ব্যাপারেও সরব হন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহেলট।

আরও পড়ুনঃ- মাধ্যমিক যোগ্যতায় পোস্ট অফিসে ৯৮,০০০ শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ।

অন্নপূর্ণা ফুড স্কীম প্রসঙ্গে অশোক গেহেলট আরও বলেন, এখন থেকে ১ কোটি ৪০ লক্ষ উপভোক্তা এই স্কীমের অধীনে বিভিন্ন রেশন সামগ্রীর সুবিধা পাচ্ছেন। এবং এই স্কীমের অধীনে রেশন ডিলারদের কমিশন পরিবার প্রতি চার টাকা থেকে বাড়িয়ে দশ টাকা করা হয়েছে রাজস্থান সরকারের তরফে।

এমন আরও দেশ বিদেশের গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট সবার আগে জানতে আমাদের টেলিগ্রাম এ অনুসরণ করতে ভুলবেন না।

টেলিগ্রাম গ্রুপ:- Link

Like Facebook Page